যে তথ্যের গরমিলে বন্ধ হতে পারে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট

0
76

দিনে দিনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ফেসবুক। এরই সঙ্গে ফেসবুক ভুয়া অ্যাকাউন্ট কিংবা অসত্য তথ্য দিলে আগাম সতর্কতা না দিয়ে সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। বন্ধ করা অ্যাকাউন্ট খুলতে চাইলে জাতীয় পরিচয়পত্রসহ বিভিন্ন ধরনের তথ্য চাওয়া হচ্ছে।

ফেসবুকে ব্যক্তিগত তথ্য, সামাজিক বা ব্যবসায়িক যোগাযোগের কারণে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ফেসবুক অ্যাকাউন্ট করতে ফোন নম্বর, ভোটার আইডি ও ব্যক্তির নিজস্ব বিভিন্ন ধরনের তথ্য যোগ করতে হয়।

ফেসবুক ব্যবহারকারীদের দাবি, ফেসবুক লগইন করতে গেলে নিরাপদ রাখার ব্যাপারে বেশকিছু পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশন করতে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর চাওয়া হচ্ছে। তথ্য দেওয়ার পর জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বরের সঙ্গে জন্ম তারিখের মিল না থাকলে সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট।

নিরাপত্তার জন্য বাড়তি কিছু ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে ফেসবুক। সেখানে প্রথমে ফেসবুক পরিচয় নিশ্চিত করতে বলছে। বলা হচ্ছে অ্যাকাউন্ট লগ আউট হয়েছে এবং পরবর্তী ধাপে অগ্রসর না হওয়া পর্যন্ত সচল হবে না। পরে সমস্যা সমাধানে ফেসবুক সহায়তা কেন্দ্রে যোগাযোগ করার কথা বলা হচ্ছে। অ্যাকাউন্টে আপলোড করা তথ্য ডাউনলোডের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে সাময়িক বন্ধ হওয়া অ্যাকাউন্টগুলোর তথ্যের মিল থাকলে সচল হচ্ছে।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেয়নি।